নীতিমালা

দেশ গড়ি প্রত্যেক নাগরিকের নাগরিক অধিকারের জায়গা। বাংলাদেশের উন্নয়নের জন্য তার অভিজ্ঞতা, চিন্তা আর মতামত এবং দাবি প্রকাশের মধ্য দিয়ে সবাই মিলে দেশের উন্নতি কীসে হবে, সে বিষয়ে আলোচনা ও জবাবদিহিতার চর্চার ক্ষেত্র। দল-মত ইত্যাদি সবকিছুর ঊর্ধ্বে থেকে দেশের উন্নয়নের প্রশ্নে এক হওয়ার একটি ক্ষেত্র। দেশগড়ি.নেট-এ প্রকাশিত কোনো লেখা নিচের নীতিমালার পরিপন্থী হলে, ‘দেশ গড়ি’র মডারেটরবৃন্দ যে কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও, মন্তব্য বা অন্যান্য উপাদান অপসারণ করতে পারেন।

 

‘দেশ গড়ি’র নীতিমালা

প্রিয় সদস্য ও পাঠকবৃন্দ,
‘দেশগড়ি’ নামের উন্নয়নভিত্তিক ওয়েব প্লাটফর্ম পরিচালনার ক্ষেত্রে নিচেয় বর্ণিত নীতিগুলো অনুসরণ করা হবে:

    • ১) বাংলাদেশকে একটি উন্নয়ন ক্ষেত্র হিসেবে বিবেচনা করে এ দেশের উন্নয়নের সাথে জড়িত বিষয়ই এখানকার আলোচিত বিষয় হিসেবে বিবেচিত হবে।

 

    • ২) ব্যক্তির পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, গবেষণা প্রতিষ্ঠান, উন্নয়ন প্রতিষ্ঠান ইত্যাদি (যারা দেশের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কাজ করছেন তারাও) তাদের গবেষণা এবং অনুসন্ধানপত্র এখানে প্রকাশ করতে পারবেন।

 

    • ৩) ‘দেশগড়ি’র সদস্য হিসেবে একে অপরের প্রতি দলবদ্ধ আক্রমণ, অশিষ্ট মন্তব্য, মিথ্যা তথ্য প্রভৃতি থেকে বিরত থাকতে হবে। কোনো সদস্য অন্য কোনো মতাদর্শ প্রচারের লক্ষ্যে, কিংবা ভিন্নমতের প্রতি বিদ্বেষ তৈরির উদ্দেশ্যে অথবা ব্যক্তিগত কারণে মিথ্যা এবং অপ্রাসঙ্গিক তথ্য প্রকাশ করলে বা এ জাতীয় অভিযোগ পাওয়া গেলে এবং ‘দেশগড়ি’র নীতিমালা বা লক্ষ্য-উদ্দেশ্য বা দৃষ্টিভঙ্গির বিচারে অগ্রহণযোগ্য হিসেবে প্রতীত হলে, মডারেটর সেই আক্রমণাত্মক লেখা, মন্তব্য বা উপাদান সরিয়ে দিতে পারবেন। ‘পরন্তু, প্রথম সতর্ক সংকেত হিসেবে ৭ দিন, দ্বিতীয়বার ৩০ দিন, তৃতীয়বার অনির্দিষ্টকালের জন্য সদস্যপদ মডারেশনের আওতায় আনা হতে পারে।

 

    • ৪) বাংলাদেশের মেধাস্বত্ব আইন লঙ্ঘন করে, এমন কোনো উপাদান ‘দেশ গড়ি’তে প্রকাশ করা যাবে না। অবশ্য, কপিরাইট আইন মেনে অন্য জায়গায় প্রকাশিত উপাদান রেফারেন্স দিয়ে প্রকাশ করা যাবে।

 

    • ৫) মডারেটররা তাৎক্ষণিকভাবে কোনো সিদ্ধান্ত নিয়ে এ নীতিমালা প্রয়োগ করতে পারেন। তবে, সর্বাবস্থায় রেফারেন্স হিসেবে এই নীতিমালাই দ্রষ্টব্য।

 

    • ৬) নীতিমালা লঙ্ঘিত হলে মডারেটরদের পক্ষ থেকে সদস্যরা সে সম্পর্কে অবগত হবেন। বারংবার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটলে সদস্যের অধিকার সীমিত করা হতে পারে, ক্ষেত্রবিশেষে সদস্যাবস্থা বাতিলও করা হতে পারে।

 

    • ৭) সদস্যদের মতামত প্রকাশের ক্ষেত্রে বিভিন্ন মত সম্পর্কে সহনশীল হতে হবে। বাংলাদেশ রাষ্ট্রের পবিত্র সংবিধানে প্রদত্ত প্রত্যেক নাগরিকের ধর্মীয় ও রাজনৈতিক অধিকারের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে সমালোচনা করা যেতে পারে। মনে রাখতে হবে যে, ‘দেশ গড়ি’র মূল উদ্দেশ্য দেশের উন্নয়ন। দেশের উন্নয়নে সবাই একাত্ম হওয়া। উন্নয়নের জন্য আমাদের ছোট ছোট চিন্তা এবং উদ্যোগগুলোকে সামাজিক চেহারা দেওয়া।

 

আপনাদের একাত্মতার জন্যে অশেষ ধন্যবাদ।